বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০৪:৩৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের আগমন উপলক্ষে জেলা জাতীয় পার্টির পরামর্শ সভা মহানবী (সাঃ) এর ব্যঁঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত সমন্বয় পরিষদের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ এমপি আবু জাহিরের আশু রোগমুক্তি কামনা মোস্তাক আহমেদ মিলুর বিবৃতি ইমামবাড়ী বাজারে বাস চেকারের হামলায় সিএনজি চালক আহত ॥ প্রতিবাদে সভা এমপি আবু জাহিরের রোগ মুক্তি কামনায় লন্ডনে মিলাদ মাহফিল মৌলভীবাজারে নৌকা বাইচে কমিটির নৌকার আঘাতে শাহজালাল তরীর ৫ জন আহত আজমিরীগঞ্জে মদসহ বাপ-বেটা আটক হবিগঞ্জ জেলা আইনজীবি সহকারী সমিতির নির্বাচন সুষ্টভাবে সম্পন্ন লাখাই উপজেলার আইন শৃংখলা কমিটির সভা শায়েস্তাগঞ্জে নিখোঁজ দুই মাদরাসা ছাত্র ঢাকায় উদ্ধার
নবীগঞ্জে তরুণী ধর্ষণ ফুফা-ফুফু গ্রেফতার

নবীগঞ্জে তরুণী ধর্ষণ ফুফা-ফুফু গ্রেফতার

ছনি চৌধুরী, নবীগঞ্জ থেকে ॥ নবীগঞ্জ উপজেলায় ফুফুর কাছে দর্জির কাজ শিখতে গিয়ে ফুফার যৌন লালসার শিকার হয়েছে ১৬ বছর বয়সী এক তরুণী। আর এতে সহযোগীতা করেছেন ধর্ষণের শিকার তরুণীর আপন ফুফু। এমন অভিযোগে ভিকটিমের মা বাদী হয়ে গত শনিবার রাতে নবীগঞ্জ থানায় স্বামী-স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে নবীগঞ্জ উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের শ্রীধরপুর (গুমগুমিয়া) গ্রামে। আলোচিত এ ঘটনার মামলায় অভিযুক্ত স্বামী-স্ত্রী দু‘জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো- সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর থানার খাঁনপুর গ্রামের আজির উদ্দিন (৩৫) ও তার স্ত্রী নাজমা বেগম (২৮)। গতকাল শনিবার দুপুরে তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, খাঁনপুর গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের পুত্র আজির উদ্দিন প্রায় ৮/৯ বছর পূর্বে বিয়ে করেন নবীগঞ্জ উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের শ্রীধরপুর (গুমগুমিয়া) গ্রামের নাজমা বেগমকে। বিয়ের পর নাজমাকে তার বাড়িতে নেয়নি আজির। নাজমার বাড়িতেই তারা সংসার শুরু করে। প্রায় ৩ মাস পূর্বে নাজমা বেগম তার চাচাতো ভাইয়ের মেয়ে তরুণী (১৬)কে দর্জির কাজ শেখানোর প্রলোভন দেন। এতে সম্মতি দেন তরুণীর মা। গত ১১ অক্টোবর থেকে ওই তরুণী তার ফুফু নাজমার বাড়িতে যায় দর্জির কাজ শিখতে। প্রতিদিনের ন্যায় গত (১৪ অক্টোবর) বুধবারও দর্জির কাজ শিখতে যায় তরুণী। ওই দিন সন্ধ্যা ৬ টার দিকে ফুফা আজির উদ্দিন ওই তরুণীকে একটি ঘরে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এদিকে প্রতিদিনের মতো মেয়ে বাড়ীতে না ফেরায় অপেক্ষা করে মেয়েকে আনতে নাজমা বেগমের বাড়িতে যান ওই তরুণীর মা। তখন নাজমা বেগম ও তার স্বামী তরুণীর মাকে ঘরে প্রবেশ করতে বাধা দেয় এমনকি তরুণীকেও আটকে রাখে। এক পর্যায়ে গ্রামের মুরুব্বিদের বিষয়টি জানিয়ে কয়েকজন লোক নিয়ে মেয়েকে উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে ভিকটিমের মা বাদী হয়ে আজির উদ্দিন ও তার স্ত্রী নাজমা বেগমের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। এর প্রেক্ষিতে নবীগঞ্জ থানার ওসি আজিজুর রহমানের নির্দেশে ওসি (অপারেশন) আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে এস আই কামাল আহমেদসহ একদল পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে স্বামী-স্ত্রী দু‘জনকে গ্রেফতার করেন। গতকাল শনিবার তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজিজুর রহমান জানান, ধর্ষণ মামলার প্রেক্ষিতে দুই আসামীকে গ্রেফতার করে শনিবার দুুপুরে তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com