শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:৩৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
হবিগঞ্জে মেডিক্যাল কলেজ, শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা বাল্লা স্থল বন্দর ও হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ॥ জেলা আওয়ামীলীগের পক্ষ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ হবিগঞ্জের চিহ্নিত অপরাধী আশিকুর রহমান গ্রেফতার গ্রীসে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ॥ নবীগঞ্জের মমিনের ঘর বাঁধার স্বপ্ন পূরণ হলনা আজমিরীগঞ্জের কর্মকর্তাবৃন্দের সাথে বিভাগীয় কমিশনারের মতবিনিময় নবীগঞ্জের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১ জনের মৃত্যু ॥ আক্রান্ত ৩ জন মৃত্যুর পূর্ব মূর্হুত পর্যন্ত মানুষের মুখে হাসি ফুটানোর কাজ করে যেতে চাই-সৈয়দ মোঃ ফয়সল সুইডেনে কুরআন অবমাননার প্রতিবাদে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের মানববন্ধন নবীগঞ্জে করোনায় আক্রান্ত হয়ে হবিগঞ্জ এলজিইডির উপ-সহকারী কর্মকর্তার বাবা মারা গেছেন হাজী মনু মিয়া ও ওমর ফারুক আনসারীর মৃত্যুতে ইউকে কমিউনিটি ব্যক্তিবর্গের শোক মারামারি মামলায় সাংবাদিক শাওন খানের জামিন লাভ
নবীগঞ্জে কিশোরীর আত্মহত্যা

নবীগঞ্জে কিশোরীর আত্মহত্যা

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ নবীগঞ্জ পৌরসভার শিবপাশা (শ্যামলী) আবাসিক এলাকায় গলায় ফাঁস দিয়ে এক কিশোরী আত্মহত্যা করেছে। শুক্রবার সকালে ৯টার দিকে নবীগঞ্জ পৌরসভার শ্যামলী আবাসিক এলাকা মেয়ের নিজ বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।
জানা যায়, ওই এলাকার মঙ্গল দাশের মেয়ে লিপি রাণী দাশ (১৩) কে তার মা ঘরের রেখে অন্যের বাড়ি কাজ করতে যান। কাজ থেকে এসে বাড়ি ফিরে দরজা বন্ধ দেখে জানালা দিয়ে দেখতে পান লিপি ঝুলন্ত অবস্থায়। পড়ে দরজা ভেঙে লিপির মরাদেহ উদ্ধার করা হয়।
লিপির মা জানান, প্রায় এক বছর ধরে আজমিরীগঞ্জ উপজেলার রনজিত সরকার (১৭) নামের এক ছেলের সাথে সিলেট একটি হাসপাতালে দেখা হয় লিপির। সেখানে দুই জনের পরিচয়ের সূত্র ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পড়ে আমরা জানতে পেয়ে নিষেধ করার পড় তারা গোপনে তাদের সম্পর্ক চালিয়ে যায়। আমার ধারনা তাদের মাঝে কোন বিষয় নিয়ে মন মালিন্য চলছিল। এজন্যই আমার মেয়ে বলতেছে কিছু ভালো লাগছে না। আমি অন্যের বাসায় কাজ করি। প্রতি দিনের মত আজকেও সকালে মেয়েকে বলে যাই রান্না করার জন্য। পরে কাজ শেষে এসে দেখি দরজা বন্ধ। জ্বানালা দিয়ে আমি দেখতে পাই লিপি ঝুলন্ত অবস্থায়।
ওই এলাকার বাসিন্দারা জানান, কিছু দিন আগে প্রেমিক ছেলে ও মেয়ে এক সাথে যাবার সময় শ্যামলী এলাকায় আটকানো হয়। তাদের বিয়ের বয়স না হওয়ায় তাদেরকে বিয়ের প্রাপ্ত বয়স হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করার কথা বলে ছেড়ে দেওয়া হয়। ঘটনার খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার সাব ইন্সেপেক্টর অমিতাভ তালুকদার ঘটনাস্থলে গিয়ে ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরন করেন। ঘটনার বিষয় সম্পর্কে নিশ্চিত করেন নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আজিজুর রহমান।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com