মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০, ০২:০৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
শ্রীমঙ্গলে যুবলীগ নেতা সেলিমের উদ্যোগে সাড়ে ৫শ অসহায় মানুষের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ নবীগঞ্জের বিভিন্ন গ্রামে ড. রেজা কিবরিয়ার পক্ষে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ হবিগঞ্জে শেষ হয়েছে ৫দিন ব্যাপি ইয়ূথ এসোসিয়েশন অব ইউকে এর খাদ্য সহায়তা বিতরণ নবীগঞ্জে গৃহহীন দুই বীর সেনা মুক্তিযোদ্ধাকে সেনাবাহিনীর বাসস্থান উপহার আলমগীর চৌধুরীর সৌজন্যে নবীগঞ্জে ১৬৫ পরিবারকে ঈদ উপহার প্রদান নবীগঞ্জে স্বাস্থ্য বিধি অমান্য করায় ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা “বঙ্গবন্ধু ছাত্র একতা পরিষদ” নেতা রায়হান এর উদ্যোগে ইফতার বিতরণ এখন প্রমান করার সময় মানুষ মানুষের জন্য-মোতাচ্ছিরুল ইসলাম অনাহারী মুখ খাবার তুলে দিচ্ছেন হবিগঞ্জ ছাত্র সমন্বয় ফোরাম বাগুনিপাড়া ডিফেন্স হোল্ডার এ্যাসোসিয়েশন ঈদ উপহার বিতরন
চুনারুঘাটে হাজার লোকের মিছিল-সমাবেশ ভুমিকম্পে দুনিয়া ধ্বংশের গুজব ছড়িয়ে আতংকের সৃষ্টি

চুনারুঘাটে হাজার লোকের মিছিল-সমাবেশ ভুমিকম্পে দুনিয়া ধ্বংশের গুজব ছড়িয়ে আতংকের সৃষ্টি

নুরুল আমিন, চুনারুঘাট থেকে ॥ সরকারী আদেশ অমান্য করে হাজার হাজার লোকের মিছিল হয়েছে উপজেলা সদরসহ এলাকার সর্বত্র। করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে প্রথম সমজিদে মসজিদে আজান দেয়া হয়। এরপর এলাকার লোকজনকে ঘর থেকে বের হয়ে আসার আহবান জানানো হয় মাইকে। মসজিদের মাইকে সেই ঘোষনা শোনার পর আবালবৃদ্ধবণিতা রাস্তায় নেমে আসেন এবং আল্লাহু আকবর ধ্বনিতে মুখরিত করে তুলে রাতের পরিবেশ। চুনারুঘাট উপজেলা সদরে কয়েক হাজার লোকের মিছিল পৌছার পর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সত্যজিৎ রায়, থানার ওসি শেখ নাজমুল হক ঘটনাস্থলে গিয়ে মিছিলকারীকে ঘরে ফেরার অনুরোধ করেন। এরই মাঝে পুরো চুনারুঘাটে ছড়িয়ে পড়ে মিছিল। চুনারুঘাটের সর্বত্র মিছিল বের করা হয়। ওই মিছিলগুলো রাত প্রায় দেড় টা পর্যন্ত চলমান ছিলো। কোন কোন মসজিদের ইমাম, মোয়াজ্জিন ও কিছু নেতা ওই মিছলের নেতৃত্ব দেন।
এলাকাবাসিরা জানান, প্রথমে ফেসবুকে বড় ধরনের ভুমিকম্পের গুজব রটানো হয়। কেউ কেউ আকাশ থেকে বিরাট লোহার পাত খসে পড়ারও গুজব ছড়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। তবে কোন কোন ওয়াজিয়ান তাদের স্ট্যাটাসে করোনা থেকে বাঁচতে মাইকে আজান দেয়ার আহবান জানান। করোনা নিয়ে আতংকগ্রস্থ সাধারন মানুষ যখন রাতের খাবার শেষ করে সবে ঘুমানোর প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন ঠিক তখন এক যোগে সারা এলাকার মাইক থেকে পুরো আজানটি প্রচার করা হয়। এরপর মসজিদের মোয়াজ্জিন, দোকানপাঠের কিছু কর্মচারী, গ্রামের কিছু অতি উৎসাহি নেতা নিজ নিজ এলাকার মানুষজেনকে ঘর থেকে বের হওয়ার দাওয়াত পৌঁছে দেন। এতে সাধারন মানুষ আতংকগ্রস্থ হয়ে পড়েন। প্রচারকারীরা ভীতসন্ত্রস্থ হয়ে-দুনিয়া ধ্বংশ হয়ে যাবে বলে গুজব ছড়ায়। যার কারনে সাধারন মানুষ আতংকগ্রস্থ হয়ে পড়েন। করোনা ভাইরাস নিরোধকল্পে যে মিছিল সমাবেশ হয়েছে তা পুর্ব পরিকল্পিত ও সুদুরপ্রসারি ষড়যন্ত্র বলেই মনে করছেন সচেতন মানুষজন। সরকারের আদেশ উপক্ষো করে এ ধরনের লোকসমাগম ঘটানোর কারন এখনো অজানা। কারা, কি কারনে এ ধরনের মিছিল করেছে তা জানাতে পারেন নি প্রশাসনের কর্তা ব্যক্তিরা। সারা চুনারুঘাটে একযোগে মিছিল-সমাবেশের কথা স্বীকার করে চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার সত্যজিৎ রায় বলেন, গুজব ছড়ানো অপরাধ। শুক্রবার সকালে উপজেলা প্রশাসন থেকে লিখিত একটি নির্দেশনা জারি করা হয়েছে মসজিদের ইমামদের উদ্দেশ্যে। এতে ভবিষ্যতে গুজব ছড়ানো থেকে বিরত থাকা এবং সব ধরনের সভা সমাবেশ থেকে বিরত থাকার জন্য কঠোর নির্দেশ দেয়া হয়। সেই নির্দেশনা ইমামগন জুমার খুতবায় পাঠ করে শুনিয়েছেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com