শুক্রবার, ০৩ এপ্রিল ২০২০, ১২:২৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
সরকারি কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিদের মাঠে থাকার আহবান জানালেন এমপি আবু জাহির রিচি গ্রামে শ্রমজীবী মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ নবীগঞ্জে উপকারভোগীদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ লাখাইয়ে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ হবিগঞ্জ সদর উপজেলা ইউনিয়ন চেয়ারম্যানদের সাথে জরুরী সভা এনজিও সংস্থা ব্র্যাকের উদ্যোগে নগদ টাকা বিতরণ মাধবপুরে কাল বৈশাখী ঝড় ও শিলা বৃষ্টি ॥ ফসলের ব্যাপক ক্ষতি চুনারুঘাটে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সেনাবাহিনীর টহল অব্যাহত আজমিরীগঞ্জে প্রশাসন ও সেনাবাহিনীর যৌথ অভিযান ॥ ৮ প্রতিষ্টানকে অর্থদন্ড অভুক্ত বেওয়ারিশ কুকুরের পাশে দাড়ালেন সাংবাদিক ও পুলিশ কর্মকর্তা
থামছেই না চোরাচালান ॥ প্রতিদিনই আসছে ভারতীয় পণ্য ॥ এবার সীমান্তে বিপুল পরিমান মোবাইল ফোন ও টুথপেস্ট জব্ধ

থামছেই না চোরাচালান ॥ প্রতিদিনই আসছে ভারতীয় পণ্য ॥ এবার সীমান্তে বিপুল পরিমান মোবাইল ফোন ও টুথপেস্ট জব্ধ

পাবেল খান চৌধুরী ॥ কোন কিছুতেই যেন থামছে না সীমান্তের চোরাচালান। প্রতিদিনই আসছে কোন না কোন ভারতীয় অবৈধ পণ্য। গত ২৪ ঘন্টার মধ্যে পৃথক অভিযানে উদ্ধার করা হয়েছে শতাধিক মোবাইল ফোন, ৩ হাজার পিস ভারতীয় কলগেট টুথপেস্ট। সীমান্তের চোরাকারবারিরাও প্রতিনিয়ত বদলাচ্ছে তাদের ব্যবসার ধরন। বিজিবি, পুলিশ, র‌্যাবসহ আইনশৃংখলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিতে তারা কিছুদিন পর পর পরিববর্তন করছে ব্যবসার ধরন। মালামাল আমদানির পথ, আমদানীকারি এমনকি মালামাল আমদানীর কাজে ব্যবহৃত পরিবহণও বদলাচ্ছে প্রতিনিয়ত।
তারা কখনো নিম্ন মানের চা-পাতা, কখনো ভারতীয় মোবাইল, কখনো জ্বিরা, গাড়ীর টায়ার, নিম্ন মানের ঔষধ, সানগ্লাস, হাত ঘড়ি, গাড়ীর যন্ত্রাংশ, শাড়ী, থ্রী-পিছ, লেহেঙ্গা, সিএনজি গাড়ীর টায়ার-টিউব, ফেনসিডিল, গাঁজা, বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ভারতীয় মদসহ প্রায় ডজনখানেক পণ্য চোরাই পথে বাজার জাত করে আসছে।
গতকাল ১৯ ফেব্রুয়ারী বুধবার সকালে চিমটিবিল বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডার সুবেদার দেলোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে একদল জোয়ান টহলে বের হয়। সীমান্তের ১৯৭৪/৪ এস পিলারের ৬০০ গজ ভিতরে রাবার বাগানে চোরাকারবারিদের কার্টুন দেখে তারা ধাওয়া করে। এ সময় ৩ হাজার পিস ভারতীয় কলগেট টুথপেস্ট জব্ধ করা হয়। তবে পালিয়ে যায় চোরাকারবারিরা।
তার আগে ১৮ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে চুনারুঘাট সীমান্ত এলাকা দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করা শতাধিক অত্যাধুনিক মোবাইল ফোনসহ তিন ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতরা হল বি-বাড়ীয়া জেলার সাদব রউফের হাসান তিনান (২৫), হবিগঞ্জ সদর উপজেলার পোকরা গ্রামের ফজর আলীর ছেলে মোঃ তনু মিয়া (২২), একই উপজেলার পৈল গ্রামের শীশ আলীর ছেলে জামাল উদ্দিন (২৫)। উদ্ধারকৃত মোবাইলের মূল্য প্রায় ২০ লক্ষাধিক টাকা হবে।
আটকৃত মোবাইল ফোনের বাজার মূল্য প্রায় ২০ লাখ টাকা। আর এর মাত্র কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে বিজিবি চিমটিবিল বিওপি সদস্যরা আটক করে বিপুল পরিমান ভারতীয় নিম্ন মানের কলগেট টুথপেস্ট। যার বাজার মূল্য প্রায় ৪ লাখ টাকা। গত ৪ ফেব্রুয়ারী চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সত্যজিত রায় অভিযান চালিয়ে একটি বাগানের ভেতর থেকে উদ্ধার করেন ৪০ বস্তা ভারতীয় নিম্নমানের চা-পাতা। যার বাজার মূল্য প্রায় ৭ লাখ টাকা। এ সময় একজনকে আটক করা হয়। এরপুর্বে হবিগঞ্জ সিআইডি পুলিশ চুনারুঘাট সীমান্ত সংলগ্ন চা বাগানে অভিযান চালিয়ে দুই পিকআপ ভর্তি চা-পাতাসহ চালককে আটক করে। যার বাজার মূল্য প্রায় ১৫ লাখ টাকা। তবে এ সময় ৫ চোরাকারবারি পালিয়ে যায়।
গত তিন সপ্তাহে র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবি, উপজেলা প্রশাসনসহ আইনশৃংখলা বাহিনী বিপুল পরিমান ভারতীয় পণ্য জব্দ করে। তবে এর সাথে জড়িত চোরাকারবারিদের গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। এতকিছুর পরেও সীমান্ত যেন অনেকটাই অরক্ষিত হয়ে যাচ্ছে। কোনভাবেই বন্ধ করা যাচ্ছেনা সীমান্ত চোরাচালান। অবৈধ পণ্য আমদানী-রপ্তানী চলছেই। আর ধরা ছোয়ার বাহিরেই থেকে যাচ্ছে সীমান্তের গডফাদাররা।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com