শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০, ০৩:১১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
ফোনে চিকিৎসা দিচ্ছেন ডাঃ ফাতেমা খানম নবীগঞ্জের ডাঃ ফয়সাল চৌধুরী লন্ডনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন নবীগঞ্জে প্রশাসন-সেনাবাহিনীর যৌথ অভিযান ॥ ৬৭ হাজার টাকা অর্থদন্ড নবীগঞ্জের ৫ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা ॥ সমালোচনার ঝড় ॥ প্রেসক্লাবের প্রতিবাদ ও নিন্দা র‌্যাব ৯ এর এএসপি আনোয়ার হোসেন শামীম মধ্যবিত্তদের দোয়ারে নবীগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে দুইটি বাড়ীতে হামলা ভাংচুর ও লুটপাট ॥ মহিলা ও শিশুসহ আহত ১০ ডাঃ ফাতেমা খানম দশ টাকা কেজির চাল হাতে দিয়ে লোকজনকে ঘরে থাকার আহবান জানালেন এমপি আবু জাহির নবীগঞ্জের বেসরকারি চিকিৎসকদের পিপিই প্রদান করলেন ডাঃ মুশফিক চৌধুরী মাধবপুরে করোনা সতর্কতা ॥ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে সরানো হল বাজার
বাণিজ্য মেলায় বিক্রি হচ্ছে নকল কসমেটিকস ও মেয়াদউত্তীর্ণ ড্রিংকস

বাণিজ্য মেলায় বিক্রি হচ্ছে নকল কসমেটিকস ও মেয়াদউত্তীর্ণ ড্রিংকস

প্রেস বিজ্ঞপ্তি ॥ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোঃ আমিরুল ইসলাম মাসুদের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, গতবছরের মত এবছরও হবিগঞ্জ বাণিজ্য মেলায় অবাধে বিক্রি হচ্ছে নকল-ভেজাল ও নিম্নমানের কসমেটিকস। পাশাপাশি মেলা প্রাঙ্গনে স্থাপিত ফুসকা-চটপটির দোকানে পাওয়া যাচ্ছে মেয়াদউত্তীর্ণ কোমল পানীয়। সোমবার দুপুরে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পরিচালিত এক অভিযানে ফুটে ওঠে এ চিত্র। এ সময় মেলার পাঁচটি প্রসাধনী বিক্রয়কারী স্টল এবং একটি ফুসকা-চটপটির স্টলকে মোট ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করে অধিদপ্তর। অভিযান চলাকালে নকল ও ভেজাল প্রসাধনী বিক্রির অপরাধে গাজী গ্যালারীকে ৪ হাজার টাকা, মেয়াদহীন প্রসাধনী বিক্রির অপরাধে মিজান কসমেটিকসকে ১ হাজার টাকা, নাদিম কসমেটিকসকে ২ হাজার টাকা এবং নকল লেকমি প্রোডাক্ট বিক্রির অপরাধে লেকমি কসমেটিকস এর দুইটি স্টলকে ২ হাজার ও ৩ হাজার টাকা করে মোট ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। একি সময়ে মেলা প্রাঙ্গনে স্থাপিত খাবারের দোকানগুলোতেও অভিযান চালায় অধিদপ্তর। অভিযানে ঢাকা চটপটি স্টলে বেশ কিছু মেয়াদউত্তীর্ণ কোমল পানীয় পাওয়া যায়। এ সময় প্রতিষ্ঠানটিকে ৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এদিকে অভিযানের খবর পেয়ে বেশিরভাগ স্টলই তাদের নকল ভেজাল ও মেয়াদউত্তীর্ণ পণ্য সরিয়ে ফেলে। তবে অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে বাণিজ্য মেলায় নিয়মিত তদারকি অভিযান পরিচালিত হবে বলেও জানানো হয়। অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোঃ আমিরুল ইসলাম মাসুদের নেতৃত্বে পরিচালিত এই অভিযানে সার্বিক সহয়তায় ছিলেন এসআই খোরশেদের নেতৃত্বে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশের একটি টিম ও হবিগঞ্জ চেম্বারের প্রতিনিধি দেওয়ান মিয়া। এ সময় অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে ভোক্তা অধিকার বিষয়ক সচেতনতামূলক লিফলেট ও পাম্পলেট বিতরণ করা হয়।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com