বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১১:২৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আজমিরীগঞ্জে সম্পত্তির জন্য বাবাকে গলাকেটে হত্যা ॥ স্ত্রী সন্তান পলাতক ॥ মাথা নদীতে আর দেহ ফেলে দেয় জঙ্গলে থামছেই না চোরাচালান ॥ প্রতিদিনই আসছে ভারতীয় পণ্য ॥ এবার সীমান্তে বিপুল পরিমান মোবাইল ফোন ও টুথপেস্ট জব্ধ নবীগঞ্জে শিক্ষিকাকে উত্যক্ত করার দায়ে বখাটের কারাদণ্ড জাতির পিতার দর্শন থেকে তরুণ প্রজন্মকে শিক্ষা নিতে হবে-এমপি আবু জাহির বানিয়াচঙ্গে ইরি বোরো জমি চাষাবাদে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি ॥ মামলা দায়ের ১৩ জনের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দাখিল লাখাইয়ে মফিজুল হত্যা ॥ আসামিদের বাড়ি-ঘরে হামলা ভাংচুর ও লুটপাট মাধবপুরে মা সমাবেশ অনুষ্ঠিত কালিয়ারভাঙ্গা ইউনিয়নের গণফোরামের রমজানপুর-উমরপুর ওয়ার্ড কমিটি গঠিত হবিগঞ্জ আই.এফ.সি’র দরিদ্রদের মাঝে সেলাই মেশিন ও অসুস্থ রোগীদের মধ্যে নগদ অর্থ বিতরণ সেচ প্রকল্পের আয়তন বাড়েনি তবুও এক বছরে আড়াই লাখ টাকার অতিরিক্ত বিল প্রদান
নবীগঞ্জে শীতের তীব্রতায় ব্যস্তসময় কাটাচ্ছেন ধুনকাররা

নবীগঞ্জে শীতের তীব্রতায় ব্যস্তসময় কাটাচ্ছেন ধুনকাররা

এটিএম সালাম, নবীগঞ্জ থেকে ॥ ঘন কুয়াশার সঙ্গে কনকনে ঠান্ডা বাতাসের কারনে তীব্র শীতে নবীগঞ্জের পাহাড়ী এলাকাসহ উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলে জনজীবনে স্থবিরতা বিরাজ করছে। সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষ হাড়কাপা শীতের কারনে ঘরে বসে অলস সময় কাটাচ্ছেন। বাড়ছে শীতজনিত বিভিন্ন রোগ। অন্যবারের তুলনায় এবার শীত এসেছে আগে। বেজায় খুশি লেপ-তোষক প্রস্তুতকারী ধুনকাররা। শীত মৌসুমের শুরুতেই নবীগঞ্জ উপজেলার ধুনকরদের এখন সুদিন। তারা লেপ-তোষক তৈরীর কাজে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে। লেপ-তোষক দোকানের মালিক ও শ্রমিকদের খাওয়া দাওয়ার কোন সময় নেই। সেলাইয়ের কাজে, তুলা ধুনতে ব্যস্ত মালিক শ্রমিকরা। শীত মৌসুমের শুরুতেই ক্রেতারা লেপ-তোষকের দোকানে আগে থেকে পছন্দমত লেপ-তোষক তৈরির অর্ডার দিয়ে বায়না করছেন। শীত মোকাবিলায় অনেকেই ভিড় করছেন লেপ তোষকের দোকানে। ধুনকররা এবার ভালো মুনাফার জন্য বেশি বিক্রী করার আশায় দিন রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। কিছু দিন ধরে শীতল বাতাসের সাথে রাতে একটু একটু শীতের হাওয়ায় ধুনকরদের এখন ঘুম নেই। শীত পড়ায় এখন রাতে কাঁথা কম্বল নিয়ে ঘুমাতে হয়। শীত ঠেকাতে লেপ-তোষক, কাঁথা-কম্বল হলো মানুষের ভরসা। আবার ছিন্নমুল মানুষের জন্য শীত হলো অভিশাপ। যারা ওই শীতের কবল থেকে নিজেদের বাচিঁয়ে রাখতে ঐ সব শীত বস্ত্র ক্রয় করার মতা নেই। তাদের দূর্ভোগের সীমা নেই। জানা যায়, নবীগঞ্জ সদর সহ ছোট বড় হাট-বাজারে জাজিম, বালিশ, লেপ-তোষক তৈরি বিক্রীর কাজে শতাধিক ধুনকর রয়েছে। তারা জানান, শীত মৌসুমে লেপ-তোষক তৈরি ও বিক্রী হয় বেশী। তাছাড়া বছরের অন্যান্য দিনে বিয়ে সাদি হলে বিক্রী হয়। বিক্রির জন্য তৈরি করে রাখি। বাজার ঘুরে দেখা গেছে ক্রেতাসাধারণ লেপ-তোষক তৈরির জন্য দোকান গুলোতে ভিড় করছেন। এ জন্য ধুনকর ব্যবসায়ীরা এখন ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। তবে শীতের সাথে লড়াই করে ছিন্নমূল মানুষেরা তাদের জীবন-জিবীকা রক্ষা করতে প্রাণপন চেষ্টা করে যাচ্ছেন। আবার কেউ কেউ হাড়কাপা শীতের কারনে ঘর থেকে বের হওয়ার সাহস করছেন না। এসব শীর্তাথ দারিদ্র মানুষদের জন্য সরকারী ভাবে শীত বস্ত্র কম্বল দেয়া হলেও তা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। ইতিমধ্যে দু’একটি সামাজিক সংগঠন আর্তমানবতার সেবায় এগিয়ে এসে যৎ সামান্য শীত বস্ত্র দারিদ্রদেও মাঝে বিতরণ করেছেন। এছাড়া শীতের তীব্রতায় পুরান কাপড়ের দোকানেও ভীড় জমাচ্ছেন ছিন্নমুল মানুষজন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com