সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ০১:৩৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
শ্রীমঙ্গলে যুবলীগ নেতা সেলিমের উদ্যোগে সাড়ে ৫শ অসহায় মানুষের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ নবীগঞ্জের বিভিন্ন গ্রামে ড. রেজা কিবরিয়ার পক্ষে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ হবিগঞ্জে শেষ হয়েছে ৫দিন ব্যাপি ইয়ূথ এসোসিয়েশন অব ইউকে এর খাদ্য সহায়তা বিতরণ নবীগঞ্জে গৃহহীন দুই বীর সেনা মুক্তিযোদ্ধাকে সেনাবাহিনীর বাসস্থান উপহার আলমগীর চৌধুরীর সৌজন্যে নবীগঞ্জে ১৬৫ পরিবারকে ঈদ উপহার প্রদান নবীগঞ্জে স্বাস্থ্য বিধি অমান্য করায় ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা “বঙ্গবন্ধু ছাত্র একতা পরিষদ” নেতা রায়হান এর উদ্যোগে ইফতার বিতরণ এখন প্রমান করার সময় মানুষ মানুষের জন্য-মোতাচ্ছিরুল ইসলাম অনাহারী মুখ খাবার তুলে দিচ্ছেন হবিগঞ্জ ছাত্র সমন্বয় ফোরাম বাগুনিপাড়া ডিফেন্স হোল্ডার এ্যাসোসিয়েশন ঈদ উপহার বিতরন
খেলাধূলার প্রসারে সকলে মিলে কাজ করতে হবে ॥ এমপি আবু জাহির

খেলাধূলার প্রসারে সকলে মিলে কাজ করতে হবে ॥ এমপি আবু জাহির

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জ-৩ আসনের এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মোঃ আবু জাহির বলেছেন, সুস্থ জাতি গঠনে শিশুদের দৈহিক ও মানসিক বিকাশের সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে। এক সময় গ্রামাঞ্চলে মুক্ত মাঠ ও বড় বড় বিল-পুকুর ছিল। শিশুরা সেখানে মুক্ত মনে খেলাধূলার মাধ্যমে বেড়ে উঠতো। তাদের রোগ-বালাই হতো কম। বড় হয়ে কর্মক্ষেত্রে সফলতার স্বাক্ষর রাখতো। হাসপাতালে দৌড়াতে হতো না, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ভাল থাকায়। কিন্তু এখন অনেকেই মাঠ নষ্ট করছে এবং জলাশয় ভরাট করে ফেলছেন। এতে করে নতুন প্রজন্ম মাঠমুখী না হয়ে মোবাইল নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটায়। তাদেরকে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে খেলাধূলায় সম্পৃক্ত করতে হবে।
গতকাল শুক্রবার বিকেলে হবিগঞ্জ সদর উপজেলার লুকড়া ফান্দ্রাইল নতুন বাজার খেলার মাঠে এমপি আবু জাহির ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি’র বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
এমপি আবু জাহির আরো বলেন, বর্তমান সরকার খেলাধূলার উন্নয়নে আন্তরিকভাবে কাজ করছে। উপজেলায় উপজেলায় স্টেডিয়াম নির্মাণ করে দিচ্ছে। আমিও হবিগঞ্জের ক্রীড়াঙ্গনে উন্নয়নের জন্য আধুনিক স্টেডিয়াম এনে দিয়েছি। সারা বছরই মাঠে খেলা রাখার জন্য পৃষ্টপোষকতা দিচ্ছি। শুধু সরকার এবং আমরা জনপ্রতিনিধিরা এগিয়ে আসলেই হবে না, সকলে মিলে এ ব্যাপারে কাজ করতে হবে। গ্রামাঞ্চলে এখনও মানুষ খেলাধূলাকে ভালবাসে এবং এখানেই বিনোদন খুঁজে। আজকের মাঠভর্তি দর্শক এর প্রমাণ। সারা বছরই এই মাঠে যেন তরুণদের পদচারণায় মুখরিত থাকে সেই ব্যবস্থা করতে হবে।
লুকড়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান রইছ মিয়া চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বর্তমান চেয়ারম্যান ফরহাদ আহমেদ আব্বাস, আব্দুস সাত্তার তালুকদার, হাজী মিয়াধন মিয়া, আহাম্মদ আলী মেম্বার, আব্দল্লাহ চৌধুরী মেম্বার, লাউছ মিয়া চৌধুরী, গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী সুজাত, লিমন আহমেদ, হান্নান মিয়া চৌধুরী, মজলিশ মিয়া, সজল চৌধুরী প্রমুখ।
টুর্নামেন্টে ১২টি দল অংশ নেয়। গতকালের ফাইনালে ট্রাইব্রেকারে ইনাতাবাদ একাদশকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় যাত্রাবড়বাড়ি একাদশ। পুরো খেলা উপভোগ শেষে চ্যাম্পিয়ন দলের হাতে একটি ফ্রিজ ও রানার্সআপ দলের হাতে ২৪ ইঞ্চি রঙিন টেলিভিশন তুলে দেন প্রধান অতিথি। খেলা পরিচালনা করেন ফেরদৌস আহমেদ। মাঠে প্রায় ১০ হাজার দর্শকের সমাগম ঘটে। বিদেশী খেলায়াড়র অংশগ্রহণে খেলাটি হয়ে উঠে অত্যন্ত উত্তেজনাকর। খেলার পৃষ্টপোষকতায় ছিলেন ইংল্যান্ড প্রবাসী কামাল চৌধুরী ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী হান্নান চৌধুরী।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com