সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
করোনা ভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে হবিগঞ্জ শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজে এক যুবক ভর্তি পরিবেশ ও নিরাপত্তায় আপোষহীন শিল্প প্রতিষ্ঠান সায়হাম গ্রুপ পানির অভাবে গুঙ্গিয়াজুরী হাওর বিরান ভূমিতে পরিণত বানিয়াচঙ্গে ডোবা থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার শায়েস্তাগঞ্জে আপনজনের উদ্যোগে শিক্ষা সহায়ক উপকরণ বিতরণ বিথঙ্গল জেডিসি উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও স্বেচ্ছারিতার অভিযোগ হবিগঞ্জ জেলা যুবদলের সাথে যুবদলের কেন্দ্রীয় মনিটরিং টিমের কর্মীসভা নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নে গণফোরামের ৭নং ওয়ার্ড কমিটি গঠিত সারা বছরই অরক্ষিত থাকে বানিয়াচঙ্গের শহীদ মিনার বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা দ্রুত সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে-এমপি আবু জাহির
নবীগঞ্জের হিরা মিয়া গার্লস হাই স্কুল এসএসসির টেস্ট পরীক্ষায় ২১৫ জনের মধ্যে অকৃতকার্য ১০৭ ॥ ক্ষোভ

নবীগঞ্জের হিরা মিয়া গার্লস হাই স্কুল এসএসসির টেস্ট পরীক্ষায় ২১৫ জনের মধ্যে অকৃতকার্য ১০৭ ॥ ক্ষোভ

ছনি চৌধুরী, নবীগঞ্জ থেকে ॥ নবীগঞ্জ শহরের একমাত্র হিরা মিয়া গার্লস হাই স্কুলে এসএসসি টেস্ট পরীক্ষায় অংশগ্রহনকারী শিক্ষার্থীদের অর্ধেকই অকৃতকার্য হয়েছে। স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি ও শিক্ষকদের সাথে সমন্বয় না করে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ আশরাফুল আলম ফলাফল প্রকাশ করায় গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে ক্ষোভ ও উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের মার্কশীট দেখার জন্য অভিভাবকরা দাবী জানিয়েছেন। হট্টগোলের খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন।
জানা যায়, হিরা মিয়া গার্লস হাইস্কুলে ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের টেস্ট পরীক্ষায় মোট ২১৫ জন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহন করে। এর মধ্যে ১০৮ জন শিক্ষার্থী কৃতকার্য হয়েছে। বাকী ১০৭ জন শিক্ষার্থী অকৃতকার্য্য হয়েছে। এতে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে স্কুলের শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভবকরা স্কুলে গিয়ে অকৃতকার্যদের প্রাপ্ত মার্কশীট দেখার জন্য ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের প্রতি দাবী জানান। এ সময় ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক তাদের মার্কশীট দেখাতে অনীহা প্রকাশ করেন। এ নিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করে। এতে আশপাশের লোকজনসহ উৎসুক জনতা ভীড় জমায়। খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আজিজুর রহমানের নির্দেশে থানার সেকেন্ড অফিসার মোঃ সামছুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন।
এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তৌহিদ-বিন-হাসানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বিষয়টি শুনেছি, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আশরাফুল আলম জানান, শিক্ষার্থী অরুনা গোস্বামীসহ কয়েকজন শিক্ষার্থী অসৌজন্যমূলক আচরনসহ হট্টগোলের সৃষ্টি করে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com