শুক্রবার, ১০ Jul ২০২০, ০৪:৫১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
তেঘরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আনু মিয়ার বাড়ীতে প্রতিপক্ষের হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ ১ জন গ্রেফতার বানিয়াচঙ্গে মেয়াদোত্তীর্র্ণ ঔষধ বিতরণ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করায় টনক নড়েছে কর্তৃপক্ষের ঘটনা তদন্তে কমিটি গঠন হবিগঞ্জে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে ২৯ লাখ টাকার চেক বিতরণ করেছেন এমপি এডাভোকেট আবু জাহির করোনা আমাদের কাছে সত্যিই হার মেনেছে শায়েস্তাগঞ্জের ইউএনও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ॥ জেলায় নতুন আক্রান্ত আরও ২৭ জন বানিয়াচংয়ে প্রশাসনের অভিযানে জব্দ ‘কারেন্ট জাল’ করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতন নাগরিক কমিটির আজমিরীগঞ্জ উপজেলা শাখার কমিটি গঠন করোনা পরিস্থিতির মাঝে মাধবপুরে ডেঙ্গু নিয়ে ভাবনা সিএনজি চালকের বিরুদ্ধে দোকানে হামলার অভিযোগ করোনায় স্থান বদল ॥ ঢাকা ফেরত নিপেন্দ্র গ্রামের বাজারে এখন ভ্রাম্যমাণ চা বিক্রেতা
নবীগঞ্জে অসহায় শিশুকে নগ্ন করে নির্যাতন ॥ জীবন বাঁচাতে নানার বাড়ী আশ্রয় নিল জিসান

নবীগঞ্জে অসহায় শিশুকে নগ্ন করে নির্যাতন ॥ জীবন বাঁচাতে নানার বাড়ী আশ্রয় নিল জিসান

স্টাফ রিপোর্টার ॥  নবীগঞ্জে নির্যাতনের শিকার বাবা হারা ৬ বছর বয়সি ছোট শিশু জিসান আশ্রয় নিয়েছে নানার বাড়ীতে। এলাকার স্থানীয় মুরুব্বিয়ানদের সহযোগিতায় তাকে উদ্ধার করে মামার মাধ্যমে নানা বাড়ীতে পাঠানো হয়।
সুত্রে জানায়, নবীগঞ্জ উপজেলার চরগাঁও গ্রামের সুফি মিয়ার সাথে বিয়ে হয় সুমনা বেগমের। সুফি মিয়ার মৃত্যুর পর ছোট শিশুর কথা চিন্তা করে সফি মিয়ার ভাই স্বপন মিয়ার নিকট বিয়েতে রাজি হন সুমনা বেগম। জীবিকার তাগিদে পাড়ি জমান সৌদি আরব। সেখানে গিয়ে শান্তিতে থাকতে পারেন নি গৃহবধূ সুমনা। টাকার জন্য তার সন্তানকে নির্যাতন করে দেবর স্বামী স্বপন মিয়া। আর সেই নির্যাতনের দৃশ্য ভিডিও করে প্রেরণ করে মায়ের নিকট।
এই দৃশ্য দেখে হতভাগা মা সন্তানকে নির্যাতনের নিকট থেকে উদ্ধার করতে ধাপে ধাপে স্বপনের নিকট টাকা প্রেরণ করেন। সেই টাকা উত্তোলন করে স্বপন। এই বিষয়টি এলাকাবাসীর নজরে এলে স্থানীয় মুরুব্বিয়ানদের সহযোগিতায় শিশু জিসানকে তাঁর মামার মাধ্যমে নানার বাড়ী পাঠান।
উল্লেখ্য,
বাবা হারা ছোট্ট দুই শিশুকে দাদা-দাদী আর চাচার কাছে রেখে জীবিকার তাগিদে গৃহকর্মী হিসেবে সৌদি আরব গিয়েছিলেন সুমনা বেগম। আর যাওয়ার আগে সন্তানদের দেখাশোনার জন্য তাদের চাচাকে কিছু টাকাও দিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। সৌদি আরব যাওয়ার দুই মাস যেতে না যেতেই তার সন্তানদের ওপর শুরু হয় নির্যাতন। টাকার দেওয়ার জন্য ৬ বছর বয়সী আপন ভাতিজাকে নগ্ন করে নির্যাতন করে সেই ভিডিও তার মায়ের কাছে পাঠিয়েছিলেন চাচা স্বপন। নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুর রহমান জানান, আমি এমন কোন অভিযোগ পাইনি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com