মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ০৪:৫৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
হবিগঞ্জে ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) এর জশ্নে জুলুছে লাখো জনতার ঢল হবিগঞ্জে মোহনা টেলিভিশনের ১০ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত শহরের পুরাণমুন্সেফির পুকুর থেকে নবজাতকের লাশ উদ্ধার হবিগঞ্জ সদর থানা পুলিশের অভিযানে ১১ জন আটক ডাকাতি প্রতিরোধসহ অপরাধ কর্মকান্ড হ্রাসে প্রাণান্তকর চেষ্টা চালাচ্ছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল ইসলাম বাহুবলে দু’ছাত্রীকে তোলে নেয়ার চেষ্ঠা ॥ সিএনজি চালক ও বখাটের কারাদন্ড তেঘরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আনু মিয়াকে জেলে প্রেরণ নবীগঞ্জের ২নং ইউনিয়ন বিএনপির কমিটি গঠন নবীগঞ্জে অসহায় মহিলার বাড়িঘর ভাংচুর-গাছপালা বিনষ্ট ॥ অভিযোগ নবীগঞ্জের ৭নং করগাঁও ইউনিয়ন বিএনপির আহবায়ক কমিটি গঠন
২০ হাজার মানুষের গ্রামে একটি রাস্তাও পাকা নেই ॥ চরম দুর্ভোগ

২০ হাজার মানুষের গ্রামে একটি রাস্তাও পাকা নেই ॥ চরম দুর্ভোগ

চুনারুঘাট প্রতিনিধি ॥ চুনারুঘাট উপজেলার দক্ষিণাঞ্চলে অবহেলিত রহমতাবাদ, বাঘারুক, কালাইওনা, চান্দপুর বস্তির আংশিক, ইনাতাবাদ-জুড়িয়া, ময়নাবাদ ও বড়বাড়ি গ্রামের প্রায় ৭ কিলোমিটার কাঁচা রাস্তা সংস্কারের অভাবে বড় বড় গর্তে পানি জমে কাঁদায় পরিণত হয়েছে। কাঁচা রাস্তা দিয়ে এলাকার জনসাধারণে চলাচলে অনুপযোগি হয়ে পরেছে। এতে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হয়। দীর্ঘদিন ধরে কাঁচা রাস্তাটি পাকাকরণ না হওয়ায় বড় বড় গর্তে ভরপুর রয়েছে। ফলে এলাকাবাসীর যাতায়তের একমাত্র রাস্তাটি বেহাল দশায় পরিনত হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটি পাকাকরণের জন্য কারো সুনজর নেই বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, উপজেলা দেওরগাছ ইউনিয়নের জুড়িয়া-বড়বাড়ী থেকে ইনাতাবাদ হয়ে ময়নাবাদ প্রবেশ করেছে। বর্ষার সময় এই রাস্তায় বড় বড় গর্ত তৈরি হয়। এই গর্তের রাস্তা দিয়ে ভ্যান-রিকশা সিএনজি চলাচলে বেঘাত ঘটে। বড় কোনো যানবাহন চলাচলের কোনো সুযোগ নেই। এই রাস্তা দিয়ে অগ্রনী উচ্চ বিদ্যালয়, ডিসিপি হাই স্কুল, চুনারুঘাট সরকারি কলেজ, মাদ্রাসা, কলেজের শিক্ষার্থীদের প্রতিদিনই যাতায়াত করতে হয়। কাঁচা রাস্তা দিয়ে মফিজ উদ্দিন চৌধুরী আলিয়া মাদ্রাসা, বড়বাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কষ্ট করে প্রতিদিন স্কুল কলেজে যেতে হয়। এছাড়াও কুতুব দিয়া খানকা শরীফ, মধ্যবড়বাড়ি জামে মসজিদ, কাজী বাড়ী জামে মসজিদ, জুড়িয়া পুরা বাড়ি জামে মসজিদের মুসল্লিরাও এই কাঁচা রাস্তা দিয়ে যেতে হয়। ইনাতাবাদ, জুড়িয়া ও বড়বাড়ি এই তিনটি গ্রামের ২০ হাজার মানুষের গ্রামে একটি রাস্তাও পাকা নেই। সবকটি কাচা রাস্তা দিয়ে ওই এলাকার মানুষের যাতায়ত করতে হয়। ফলে দেওরগাছ ইউিনিনের কমপক্ষে ১০টি গ্রামের ২০ হাজার মানুষকে কষ্ট করেই চলাচল করতে হচ্ছে। স্থানীয়রা জানান, সামান্য বৃষ্টি হলেই এই রাস্তাটির জন্য উপজেলার দেওরগাছ ইউনিয়নের ইনাতাবাদ, জুড়িয়া ও বড়বাড়ি গ্রামের মানুষগুলোর শহরে আসতে হয় দীর্ঘ রাস্তা ঘুরতে হয়। তিন কিলোমিটার চলাচলের কাঁচা রাস্তা যা একেবারেই অযোগ্য হয়ে পড়েছে। তারা বিষয়টি নিয়ে জনপ্রতিনিধিদের সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করলেও কোন সু-রেখা হয়নি। এদিকে এলজিইডি দফতরে একাধিকবার চেষ্টা করেও রাস্তা পাকাকরণের কোনো ব্যবস্থা হয়নি। জুড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা প্রবাসী ইউসুফ আলী সাদ্দাম জানান, আমাদের গ্রামের কাঁচা রাস্তাটি দীর্ঘ দিন ধরে অবহেলিত। জনপ্রতিনিধিরা ভোটের সময় আসলে বলে পাকা করে দিবে। কিন্তু ভোট গেলে আর কে কার খবর রাখে। স্বাধীনতার পর জুড়িয়া ও ইনাতাবাদ রাস্তাটি কোন উন্নয়ন কাজ হয়নি। তিনি আর বলেন, আমাদের ৫টি গ্রামের রাস্তাটি কাঁচা রাস্তাটি কাঁদার ফলে ওই দুই কিলোমিটার ভেঙ্গে চুরে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ বাবুল মিয়া জানান, সামনে অনুদান আসলেই রাস্তা পাকাকরণ করে দেয়া হবে। তেমন কোন বরাদ্দ না পাওয়া রাস্তা পাকাকরণ কাজ করতে পারছি না। স্থানীয় তরুণ সমাজ কর্মী রুমন ফরাজী বলেন, অজ্ঞাত কারনে দেওরগাছ ইউনিয়নে কোন উন্নয়ন থেকে আমরা বঞ্চিত। বর্তমানে কয়েকটি রাস্তার কাজ শুরু হয়েছে। তবে আমাদের বিমান প্রতিমন্ত্রী এডঃ মাহবুব আলী ও উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কাদির লস্করের প্রচেষ্টা সামনে দেরওগাছ ইউনিয়নের কাঁচা রাস্তা পাকাকরণ হবে বলে আমার বিশ্বাস।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com