শুক্রবার, ০৫ Jun ২০২০, ০৩:৪৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
মাধবপুরে বৃষ্টির সময় শিশুকে ধর্ষন ॥ ধর্ষক গ্রেফতার বাস চালক ঘুমে ॥ নবীগঞ্জে বাস-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ : আহত-২০ নবীগঞ্জে মসজিদে ৫হাজার টাকা বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন নবীগঞ্জে টয়লেটের ময়লার দুর্গন্ধে অতিষ্ট এলাকার মানুষ মাধবপুরের মনতলা তেমনিয়ায় মুক্তিযোদ্ধা গোলচত্বর চাই করোনায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন ইউএনও সুমী আক্তার শ্রীমঙ্গলে ৭ বছরের শিশু ধর্ষণের অভিযোগ নবীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজরে রূপচাঁদা মাছ বলে পিরানহা বিক্রি হচ্ছে চুনারুঘাটে ২৫ হাজার ৩০০ পরিবারের মধ্যে সরকারি ত্রাণ বিতরণ পইলে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট কওমি মাদ্রাসার সাবেক শিক্ষকের মৃত্যু
বাহুবলের সাবেক চেয়ারম্যান মুদ্দত আলীর বিরুদ্ধে মেয়াদোত্তীর্ণ কাগজ দিয়ে মাটি, বালু উত্তোলনের অভিযোগ

বাহুবলের সাবেক চেয়ারম্যান মুদ্দত আলীর বিরুদ্ধে মেয়াদোত্তীর্ণ কাগজ দিয়ে মাটি, বালু উত্তোলনের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাহুবলের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মুদ্দত আলীর বিরুদ্ধে অবৈধভাবে মাটি ও বালু উত্তোলনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। মেয়াদোত্তীর্ণ একটি আমোক্তারনামা প্রদর্শনের করে প্রশাসনের চোখে ধুলো দিয়ে তিনি বালু উত্তোলন করে যাচ্ছেন। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসকের নিকট অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
অভিযোগে জানা যায়, উপজেলার পশ্চিম জয়পুর গ্রামের মরহুম ফজলুল হক বাদল জীবদ্দশায় বাহুবলের শশ্মানছড়া নামক বালু মহালটি সরকারের নিকট থেকে ইজারাপ্রাপ্ত হন। পরবর্তীতে সরকারের সাথে মহালটির জটিলতা সৃষ্টি হওয়ায় তিনি মহামান্য হাইকোর্টে রীট করেন। এবং ১৯৬৩/৬ নং রীটের আদেশবলে প্রতিবছর রয়েলটি জমা দেয়ার মাধ্যমে বালু উত্তোলনের অনুমতি পান। পরবর্তীতে ব্যবসায়ীক জামেলার কারণে ওই মহালটি উপজেলার ২নং পুটিজুরী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মুদ্দত আলী পরিচালিত প্রতিষ্ঠান মেসার্স সোনার বাংলা এন্টারপ্রাইজকে ২০১১ সনের ১ জানুয়ারি থেকে ২০১৩ সনের ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত বালু মহালটি পরিচালনার জন্য নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে হস্তান্তর করেন। ফজলুল হক বাদল অকালমৃত্যু বরন করায় তার ওয়ারিশান নাবালক ২ ছেলে, ১ মেয়ে ও স্ত্রী ভোগদখলকার হন। এদিকে চুক্তিপত্রের মেয়াদ উত্তীর্ণের ৬ বছর অতিবাহিত হলেও মুদ্দত আলী চুক্তি নবায়ন না করেই মহালসহ এলাকার বালু, মাটি উত্তোলন করে পরিবেশকে হুমকির মুখে ঠেলে দিচ্ছেন। আর ফজলুল হক বাদলের মেসার্স মৈত্রী এন্টারপ্রাইজের নামীয় রশিদ প্রদান করে উত্তোলিত বালু বিক্রি করে চলেছেন। ফজলুল হক বাদলের স্ত্রী নাদিরা খানম অভিযোগে বলেন, চেয়ারম্যান মুদ্দত আলীর অবৈধ বালূ উত্তোলন ও মাটি কাটার কারণে কোন রূপ ক্ষতি সাধিত হলে এর দায়ভার মুদ্দত আলীকেই বহন করতে হবে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com