মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:৫৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
নবীগঞ্জ-রুদ্রগ্রাম সড়কের সংস্কার কাজ দীর্ঘ ১ বছরেও সম্পন্ন হয়নি উন্নয়নের স্বার্থে আইন-শৃংখলা স্বাভাবিক রাখতে হবে ॥ এমপি আবু জাহির বানিয়াচংয়ে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরীর পিতা-পুত্রের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের যে কারণে উপজেলার শ্রেষ্ঠ বিদ্যোৎসাহী সমাজকর্মী সনজু চৌধুরী নবীগঞ্জ পৌর বিএনপির ৯নং ওয়ার্ড কমিটির কাউন্সিল সম্পন্ন ॥ স্বরাজ-সভাপতি, কামাল- সম্পাদক, দিলাল- সাংগঠনিক শহরের চৌধুরী বাজার ফাঁড়ি ইনর্চাজের মেয়ে নিহত রুম্পার বাড়ীতে শোকের মাতম চোঁখের সামনেই মারা গেল ভয়ে এগিয়ে আসেনি কেউ পুকড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতার পিতার ইন্তেকাল ॥ শোক প্রকাশ নবীগঞ্জে ৫ ওয়ারেন্টের আসামী গ্রেফতার বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে জি কে গউছ ॥ খালেদা জিয়ার মুক্তি নিশ্চিত না করে বিএনপি ঘরে ফিরবে না
শহরের গরুর বাজার এলাকায় ২ হাজার বস্তা সরকারী চাল জব্দ

শহরের গরুর বাজার এলাকায় ২ হাজার বস্তা সরকারী চাল জব্দ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জ শহর থেকে পাচারকালে প্রায় ২ হাজার বস্তা সরকরি চাল জব্দ করেছে জেলা প্রশাসন। গতকাল বুধবার রাতে শহরের গরুর বাজার এলাকার একটি গোদাম থেকে এসব চাল জব্দ করা হয়। ‘শেখ হাসিনার বাংলাদেশ ক্ষুধা হবে নিরুদ্দেশ’ শ্লোগান লেখা খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির এ চাল বিভিন্ন ইউনিয়নে হতদরিদ্রদের মাঝে চেয়ারম্যানদের মাধ্যমে বিতরণ করা হয়ে থাকে। আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে হতদরিদ্রদের মধ্যে বিতরণের জন্য ভিজিএফ এর চাল সরকার থেকে বিশেষভাবে বরাদ্দ দেয়া হয়। প্রত্যেকের মাঝে ১৫ কেজি করে বিতরণের কথা রয়েছে। আর ভিজিডি প্রত্যেকের মধ্যে ৩০ কেজি করে বিতরণের কথা।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইয়াছিন আরাফাত রানা জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গরুর বাজার এলাকার হাবিবুর রহমান খানের মালিকানাধীন সুরমা অটোরাইছ এন্ড ফাওয়ার মিলে অভিযান চালানো হয়। এ সময় মিলের গোদামে রাখা সরকারি ১ হাজার ৫০ বস্তা, একটি ট্রাকে ভর্তি ৮৬০ বস্তা এবং বিপুল পরিমান খোলা চাল জব্দ করা হয়। যা পাচারের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছিল সরকারি বস্তা থেকে চালগুলো খুলে অন্য বস্তায় ভরা হচ্ছিল। খাদ্য অধিদপ্তরের সীল সম্বলিত প্রতিটি বস্তাই ৩০ কেজি ওজনের। এগুলো দরিদ্রদের মাঝে বিতরনের ভিজিডি এবং ভিজিএফ এর চাল বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর সাথে যারাই জড়িত তাদের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি ওই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার নয়নের বরাত দিয়ে জানান, চালগুলো বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানদের কাছ থেকে কেনা হয়েছে। অভিযানে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিছুর রহমানসহ সদর থানার পুলিশ ও সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারিরা উপস্থিত ছিলেন। অভিযানকালে ট্রাক চালক পালিয়ে যান এবং ব্যবসায়ী হাবিবুর রহমান খান গোদামে ছিলেন না।
ব্যবসায়ীদের একটি সূত্র জানায়, হাবিবুর রহমান খান দীর্ঘদিন ধরেই বিভিন্ন স্থান থেকে অবৈধভাবে সরকারি চাল ক্রয় বিক্রয়ের ব্যবসা করে আসছেন। তিনি সরকারি এসব চাল এনে খুলে অন্য বস্তায় ভরে তা পাচার করেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com