মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারী ২০২০, ০৬:১০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
কিবরিয়া ব্রীজের বেহাল অবস্থা বড় ধরণের দুর্ঘটনার আশংকা শহরে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ বিক্রি করায় ফামের্সীকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা আ’লীগ-বিএনপির সংঘর্ষ নিহত ১ ॥ পর্তুগালে নবীগঞ্জের ২ প্রবাসী গ্রেফতার অ্যাপলো হাসপাতালে আলহাজ্ব রইছ মিয়া ও ডাঃ তপন কুমার দাশগুপ্তকে দেখতে গেছেন এমপি আবু জাহির হবিগঞ্জ পৌরসভায় দরপত্রের সিডিউল বিক্রয়ে অনিয়ম ॥ মেয়র বললেন অভিযোগ মিথ্যা শিক্ষার্থী জেরিনের মৃত্যুর প্রতিবাদে লাখাই সড়কে অবরোধ ও বিক্ষোভ আজমিরীগঞ্জে কাকাইলছেও দুর্বৃত্তের হামলা-ভাংচুর ॥ ৩ কলেজ ছাত্র আহত প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকের হবিগঞ্জ সহ ১৪ জেলার ফলাফল স্থগিত বাণিজ্য মেলায় পণ্যের অতিরিক্ত মূল্য রাখার অভিযোগ উঠেছে হবিগঞ্জে নতুন মুক্তিযোদ্ধা স্বীকৃতি পাচ্ছেন ৩৬ জন
নবীগঞ্জে বাড়ী ফেরার পথে স্কুল ছাত্রীকে প্রহার ॥ ২ বখাট আটক

নবীগঞ্জে বাড়ী ফেরার পথে স্কুল ছাত্রীকে প্রহার ॥ ২ বখাট আটক

মোঃ আলমগীর মিয়া, নবীগঞ্জ থেকে ॥ নবীগঞ্জে এক অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রীকে যৌন হয়রানি অভিযোগ উঠেছে। স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে দুই বখাটের প্রহার। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শনিবার বিকেল ৪ টায়। স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নবীগঞ্জ উপজেলার কুর্শি ইউনিয়নের নোয়াগাও গ্রামের সুজন মিয়ার কন্যা সৈয়দ আজিজ হাবিব উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী ইয়াছমিন আক্তার (১৬) ক্লাস শেষে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে দুই বখাটে তাকে যৌন হয়রানি করে। এ সময় ওই ছাত্রী বখাটেদের বাঁধা দিলে তার চোখে আঘাত করা হয়। বখাটেদের আঘাতে স্কুল ছাত্রী ইয়াছমিন আক্তার আহত হলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আশংকাজনক অবস্থায় মেয়েটিকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এ ঘটনায় সৈয়দ আজিজ হাবিব উচ্চ বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীদের মাঝে ক্ষোভের সঞ্চার সৃষ্টি হয়েছে। এ ব্যাপারে শারীরিক শিক্ষা বিভাগের শিক্ষক আজহারুল ইসলাম মল্লিক বলেন, ইয়াছমিন আক্তার স্কুল ছুটির পর বাড়ি ফেরার পথে বখাটেরা তার উপর হামলা চালায়। পরে স্থানীয় ইউপি মেম্বারসহ এলাকার মুরুব্বিয়ানদের মাধ্যমে বখাটেদের নবীগঞ্জ থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়। নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইকবাল হোসেন বলেন, দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ চলার সময় স্কুল ছাত্রী ইয়াছমিনের উপর ঢিলের পড়ে আঘাত প্রাপ্ত হয়। ইয়াছমিনের পিতা সুজন মিয়া বলেন, আমি বাজারে ছিলাম। হঠাৎ আমার পরিবারের লোকজনের মাধ্যমে জানতে পারলাম একই এলাকার আফাস মিয়ার বখাটে দুই ছেলে আব্দুর রহিম (২০) ও সেকুল (১৯) আমার মেয়েকে প্রহার করে আহত করেছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com